No icon

বরুড়ার চার শিক্ষককে সম্মাননা ও ১২ শিক্ষার্থীকে মেধাবৃত্তি প্রদান

শিক্ষকতায় বিশেষ অবদানের জন্য বরুড়া হাজী নোয়াব আলী পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের চার শিক্ষককে বিশেষ সম্মাননা দেয়া হয়েছে। এছাড়াও একই বিদ্যালয়ের ১২ শিক্ষার্থীকে মেধার স্বাক্ষর রাখায় মেধাবৃত্তি দেয়া হয়েছে।

শুক্রবার (১৪ ডিসেম্বর) বরুড়া হাজী নোয়াব আলী পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের ১৯৯৩ ব্যাচের রজতজয়ন্তী পুনমিলনী অনুষ্ঠানে এ সম্মাননা ও মেধাবৃত্তি দেয়া হয়।

১৯৯৩ ব্যাচের রজতজয়ন্তী পুনমিলনী উপলক্ষে দিনব্যাপি অনুষ্ঠানের অংশ হিসেবে সকালে বরুড়া বাজারে র‌্যালি করা হয়। এরপর বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে আলোচনা, স্মৃতিচারণ, আড্ডা, সম্মাননা ও মেধাবৃত্তি দেয়ার কর‌্যক্রম চলে। সন্ধ্যার পর হয় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। এদিন ৯৩ ব্যাচের শিক্ষার্থীদের পদচারণায় মুখরিত ছিল বরুড়ার হাজী নোয়াব আলী পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণ।

অনুষ্ঠানে শিক্ষকতায় বিশেষ অবদানের জন্য চারজন শিক্ষককে সম্মাননা দেয়া হয়। তারা হলেন- আবদুল মতিন, সুজাত আলী ভূইয়া, ক্ষিরৎ চন্দ্র মজুমদার ও মাজহারুল ইসলাম।

এছাড়া সপ্তম শ্রেণী থেকে দশম শ্রেণী পর‌্যন্ত বার্ষিক পরীক্ষায় প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থান অর্জনকারীদের মেধাবৃত্তি দেয়া হয়। বৃত্তিপ্রাপ্তরা হলেন- দশম শ্রেণীর আবিদা জান্নাত, যাবিন তাসনিম ও মুশফিকা হুমায়রা। নবম শ্রেণীর তালহা যোবায়ের, বুশরা আনজুম ও নুসরাত নুজাত। অষ্টম শ্রেণীর অভিষেক বকসী, ফাউজিয়া রহমান ও সাউদা তাসনিম সুবহা। সপ্তম শ্রেণীর মেহেদী হাসান মিরাজ, মেহেদী হাসান মিথুন ও তাসনিয়া জান্নাত।

অনুষ্ঠানে স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি জুনাব আলীসহ কমিটির অন্যান্য সদস্যবৃন্দ, ঢাকার অতিরিক্ত চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট কেশব রায় চৌধুরীসহ ৯৩ ব্যাচের শিক্ষার্থীবৃন্দ, স্কুলের শিক্ষকমন্ডলী ও বিভিন্ন ব্যাচের ছাত্র-ছাত্রীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Comment As:

Comment (0)